বিএনপি চোখ থাকতেই অন্ধ- আনিসুল হক

কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজনীতি, 2 June 2023, 76 বার পড়া হয়েছে,

স্টাফ রিপোর্টার,

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, কালকে যখন আমাদের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে, দেখা গেছে আমাদের দারিদ্রসীমা কমে এসেছে। আমাদের যারা চাকুরি পাচ্ছি তাদের সংখ্যাও আস্তে আস্তে কমে আসছে। যে বাংলার উন্নতি হচ্ছে, বাংলাদেশের উন্নয়ন হচ্ছে সেই উন্নয়নটা কিন্তু কারো কারো চোখে ভালো লাগছে না। বিশেষ করে বিএনপির সাহেবদের। বিএনপি চোখ থাকতেই অন্ধ। তাদের সঙ্গে এখন আরো কেউ যোগ দিয়েছে।

যারা লুটপাট করে বাংলাদেশকে শেষ করে দিছিল। বাংলাদেশটা তলাবিহীন ঝুড়ি প্রমাণ করে দিয়েছিল। তিনি শুত্রæবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন।

মোগড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশিকুজ্জামান নূর রিফাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক এমপি আরো বলেন, বাংলাদেশকে এটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার সকল সরঞ্জাম তৈরি করে ফেলেছিল, তাদের কিন্তু স্বস্তি হচ্ছে না। তারা আর উন্নয়ন দেখতে পায় না। তাঁদের চোখ থাকতেও তাঁরা অন্ধ।

তিনি বলেন, আপনাদের ভোটে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন কিন্তু বিএনপি দেখে না। তাঁরা আপনাদের কাছে নির্বাচন করতেও আসবে না। নির্বাচন দিলেই তারা বলে, আমরা নির্বাচনে যাব না।

মন্ত্রী বলেন, ওনারা (বিএনপি) বাজেট দিতেন কিভাবে আমি বলি। ওনারা বাজেট দিত-এই যে দাতা দেশ আছে না, এরা নিজেদেরকে বলত ডোনার। মিটিং হইত প্যারিসে, বাংলাদেশে না। ওনারা বড় বড় রাষ্ট্রগুলো বলত, আমরা কত টাকা ভিক্ষা দিব। কেউ বলত ফাইভ হান্ড্রেড বিলিয়ন, এই বলে জড়ো করে ভিক্ষার টাকা যখন একসাথে হইত তখন বুঝা যেত কত টাকার বাজেট হবে।

আইনমন্ত্রী বলেন, ২০০৬ সাল, বিএনপি সাহেবদের শেষ সময়। যতটুকু মনে পড়ে ৬৩ হাজার কোটি টাকার একটু বেশি বাজেট দিয়েছিলেন। বাজেটের মধ্যে লেখা থাকত, এই যে ৬৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট তার মধ্যে ৮০ শতাংশ অর্থাৎ শতকরা ৮০ টাকা আসবে বিদেশ থেকে, আর ২০ টাকা দিবে দেশের লোক। আজকে সেই চিত্র পাল্টে গেছে। আজকে ৭ লাখ ৬১ হাজার টাকা বাজেট দেওয়ার পর আমরা বলতে পারি বাজেটের শতকরা ৮৩টাকা বাংলাদেশের জনগণ দিবে আর ১৭ টাকা দিবে বিদেশ থেকে।

অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, তেলের দাম ৬০ ডলার থেকে চলে গেছে ১২৮ ডলারে। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য। আমরা দেখছি যে সারের দাম কমে আসতেছে। পেট্ট্রোলের দামও কমে আসবে। এই অবস্থায় আমরা নিশ্চয়ই সমন্বয় করে সবকিছুর দাম কমাব।

তিনি আরো বলেন, দুইটা নির্বাচন দেখছেন। গত নির্বাচনে বিএনপি নির্বাচন করবে বলল। পরে কি করল, একেকটা নির্বাচনী এলাকায় তিনজন/ চারজন করে প্রার্থী দিয়েছে আর টাকা নিছে। তারপর বলে নির্বাচন করব না। নির্বাচন তারা করবে না, নির্বাচন নষ্ট করবে। মানুষকে বাসে পুড়িয়ে মারবে। এইটা সম্বন্ধে সতর্ক থাকবেন। আর এই যে সুদখোররা যারা এই যড়যন্ত্র করতেছে তাদের ব্যাপারেও সতর্ক থাকবেন। ষড়যন্ত্র করতে গেলে উচিত শিক্ষা দিয়ে দিবে বাংলাদেশের জনগণ।

সম্মেলন উদ্ধোধন করেন মোগড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক এমরামুল বারী শিশির। বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জজ আদালতের পিপি মাহবুবুল আলম খোকন, আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তাকজিল খলিফা কাজল।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com